বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উড়তে যাচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম ইলেকট্রিক বিমান ইন্ডিগোর ২ বিমানে ৫ যাত্রী করোনা পজিটিভ ! আতঙ্ক বিমান যাত্রায় যুক্তরাষ্ট্রে ১২ হাজার কর্মী ছাঁটাই করেছে বোয়িং দক্ষিণ কোরিয়ায় আরও ৫ বাংলাদেশি করোনা আক্রান্ত ইউএস-বাংলার ফ্লাইট চলাচল শুরু ১ জুন থেকে পরিবারের ৪ সদস্যকে আনতে ১৮০ আসনের উড়োজাহাজ ভাড়া! অভ্যন্তরীণ রুটে টিকিট বিক্রির ঘোষণা দিয়েছে বিমান, ইউএস-বাংলা ও নভোএয়ার ঢাকা কাস্টমস হাউজের ৩ রাজস্ব কর্মকর্তা করোনা আক্রান্ত ১৫ জুন পর্যন্ত আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট চলাচলের নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়েছে বেবিচক অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট চলাচলের ক্ষেত্রে বেবিচকের যে নির্দেশনা মানতে হবে

করোনায় বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছেড়েছেন সাড়ে ৮ হাজারের বেশি বিদেশি

এভিয়েশন বার্তা ডেস্ক রিপোর্ট:
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ মে, ২০২০
  • ২৮৪ বার

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যে বাংলাদেশ ছেড়েছেন কয়েক হাজার বিদেশি। এ পর্যন্ত ২০ দেশের নাগরিক বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটে নিজ নিজ দেশে ফিরে গেছেন। এর মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশে দায়িত্ব পালনরত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিক, শিক্ষার্থী, বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত বিদেশি নাগরিক ও সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর আবাসিক প্রতিনিধি ও তাদের পরিবারের সদস্য।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর গত ২৪ মার্চ থেকে বিদেশিদের দেশে ফিরে যাওয়ার আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শুরু হয়। ঢাকায় অবস্থিত বিভিন্ন দেশের দূতাবাসগুলো থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, ২৪ মার্চ থেকে ১৪ মে পর্যন্ত ২০টি দেশের ৮ হাজার ৬২৪ জন বিদেশি ঢাকা ছেড়েছেন। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ২৫ মার্চ থেকে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। এই সময়ে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। তাই সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর দূতাবাসের উদ্যোগে বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটের মাধ্যমে নিজ নিজ দেশের নাগরিকদের ফেরত নেওয়া হয়।

দূতাবাসগুলো জানায়, এই বিদেশি নাগরিকদের ফেরত পাঠানোর কাজে সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ইমিগ্রেশন ও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

২৪ মার্চের আগেও করোনার প্রাদুর্ভাব জটিল হওয়ার আশঙ্কায় কয়েকটি দেশের কূটনীতিক নিজ ব্যবস্থায় পরিবারসহ দেশে ফিরে যান। তবে অনানুষ্ঠানিক প্রক্রিয়ায় সেসব যাত্রা হওয়ায় দূতাবাসগুলো এ বিষয়ে সঠিক তথ্য জানাতে পারে নি। সংশ্লিষ্টরা ধারণা করছেন, এই সংখ্যা শতাধিক।

বিদেশি কূটনীতিকদের ফেরত যাওয়ার বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘করোনার প্রকোপ এখন বিশ্বজুড়ে। পুরো বিশ্বকে স্থবির করে দিতে যাওয়া করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সব দেশকে ঐক্যবদ্ধ হতে ও পরস্পরকে সাহায্য করতে আহ্বান জানায় বাংলাদেশ। তবে বিদেশের নাগরিকরা ফিরে যাচ্ছেন তাদের নিজ নিজ দেশের সরকারের আগ্রহের কারণে। আমাদের তারা আগ্রহের কথা জানায়, আমরা তাদের এ বিষয়ে সহযোগিতা করছি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে তারা সবাই আবার ফিরবেন। সংশ্লিষ্ট দেশ ও দূতাবাস আমাদের এই বিষয়ে জানিয়েছে। এমনকি অনেক দেশ থেকে বাংলাদেশিরাও ফেরত আসছেন। আমরা সেসব দেশের সঙ্গে কথা বলছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আমাদের অধিকাংশ নাগরিকও ফিরতে পারবেন।’

জানা গেছে, বিশেষ ফ্লাইটের মাধ্যমে এ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি দেশে ফিরেছেন ব্রিটিশ নাগরিকরা। মোট দশটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশটির ২৬৪০ জন নাগরিক এ পর্যন্ত ঢাকা ছেড়েছেন। ব্রিটিশ নাগরিকদের দেশে ফেরানোর প্রথম ফ্লাইট ছিল গত ২১ এপ্রিল। এরমধ্যে একটি ফ্লাইটটি ছিল বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের। বাকি নয়টি ফ্লাইট পরিচালিত হয় ব্রিটিশ এয়ারলাইন্সের মাধ্যমে।

এদিকে, ঢাকায় অবস্থিত দেশটির দূতাবাস জানিয়েছে, আগামী ২০, ২৬ ও ৩১ মে আরও ৩টি বিশেষ ফ্লাইটে ৯০০ জন ব্রিটিশ নাগরিক ঢাকা ছাড়বেন।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক ঢাকা ছেড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের। এ পর্যন্ত পাঁচটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশটির ১২৪৭ জন নাগরিক ঢাকা ছেড়েছেন। ৩০ মার্চ মার্কিন নাগরিকদের ফেরানোর জন্য প্রথম বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করা হয়।

এরপর তৃতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক ঢাকা ছেড়েছেন প্রতিবেশী দেশ ভারতের। এ পর্যন্ত সাতটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশটির ১ হাজার ৫৮ জন নাগরিক দেশে ফিরেছেন। দেশটির দূতাবাস জানায়, আরো ২০০ জনের মতো ভারতীয় নাগরিক আগামী কয়েক দিনে দেশে ফিরে যাবেন।

চতুর্থ সর্বোচ্চ নাগরিক ছেড়েছেন কানাডার। তিনটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশটির ৮১১ জন নাগরিক ঢাকা ছেড়েছেন। কানাডার নাগরিকদের দেশে ফেরানোর জন্য প্রথম বিশেষ ফ্লাইট পরিচালিত হয় ১৪ এপ্রিল।

তিন দফায় জাপানে ফিরেছেন ৬৪১ জন নাগরিক। তাদের প্রথম বিশেষ ফ্লাইট পরিচালিত হয় ২ এপ্রিল। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর ৩৭৮ জন নাগরিক এ পর্যন্ত দুদফায় ঢাকা ছেড়েছেন।

দু’দফায় অষ্ট্রেলিয়ার ৫১০ নাগরিক ঢাকা ছেড়েছেন। দূতাবাস জানায়, ২৭ মে দেশটির নাগরিকরা তৃতীয় দফায় ঢাকা ছাড়বেন।

দু’দফায় থাইল্যান্ডর ২৩৩ নাগরিক ঢাকা ছেড়েছেন। ইউএস বাংলার একটি বিশেষ ফ্লাইটে প্রথম দফায় ১৭ এপ্রিল দেশটির ৩৫ জন ঢাকা ছাড়েন। আগামী ২৩ মে ফিরে যাবেন আরও ১৯১ জন থাইল্যান্ডের নাগরিক।

দু’দফায় ঢাকা ছেড়েছেন ভুটানের নাগরিকরা। ২৫ মার্চের বিশেষ ফ্লাইটে ১৩৯ জন এবং ৯ মে বিশেষ ফ্লাইটে ১৪০ জন ভুটানের নাগরিক ঢাকা ছাড়েন।

রাশিয়া এ পর্যন্ত একটি মাত্র বিশেষ ফ্লাইটের মাধ্যমে তাদের নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে নিয়েছে। গত ৬ এপ্রিল রাশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে ১৭৮ জন নাগরিক রাশিয়া ফিরেন।

এছাড়া, মালদ্বীপের ৭১ নাগরিক ২০ এপ্রিল ঢাকা ছাড়েন। ১৩ মে বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ২২ জন ইন্দোনেশিয়ান। ১২ মে বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ১২০ জন পাকিস্তানি নাগরিক।

১১ মে বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ২৩৪ জন কোরিয়ার নাগরিক। ৯ মে বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ৮ জন নিউজিল্যান্ডের নাগরিক। মিয়ানমারের ৩৮ জন বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ৬ মে। ২৭ এপ্রিল বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ৭৩ জন শ্রীলঙ্কান নাগরিক। ২২ এপ্রিল সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা ছাড়েন ৯৮ জন সিঙ্গাপুরের নাগরিক। এছাড়া, গত ২১ এপ্রিল তুর্কি এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইটে ১৫৪ জন তুরস্কের নাগরিক ঢাকা ছাড়েন।

এভিয়েশন নিউজ

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
★ এই ওয়েব সাইটের কোন লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া  অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By BanglaHost
error: Content is protected !!